সকাল ৯:৪৩
বিএনপি’র শুভ বুদ্ধির উদয় হবে : আইনমন্ত্রীদুর্নীতির বিরুদ্ধে সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা : প্রধানমন্ত্রীদুর্নীতির বিরুদ্ধে সবরকম ব্যবস্থা গ্রহণ করবোস্ত্রীর জন্মদিন ভুললেই ডিভোর্স!স্বজনপ্রীতি হচ্ছে দুর্নীতির উল্টো পিঠযেই দুর্নীতি করুক ছাড় দেয়া হবে না : গণপূর্তমন্ত্রীআন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২০১৯ এর আন্তঃমন্ত্রণালয় সভাপ্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা হলেন জয়সৌদির ধর্মত্যাগী সেই কিশোরী নাম পাল্টালেনজাতিসংঘের এক তৃতীয়াংশ কর্মীই যৌন হয়রানির শিকার

নতুন মন্ত্রী সভায় ৯ আইনজীবী, নির্বাচিত ২৭

চিত্রা কর্মকার

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাওয়ার পর টানা তৃতীয়বারের মতো মন্ত্রিসভা গঠন করতে যাচ্ছে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকার।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ ৪৭ সদস্যের মন্ত্রিপরিষদে নতুন-পুরাতন মিলিয়ে ডাক পেয়েছেন দেশের ৯ আইনজীবী। এর মধ্যে ৬ জন পূর্ণ মন্ত্রী, ২ জন প্রতিমন্ত্রী ও একজন উপমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিতে যাচ্ছেন।

সর্বোচ্চ আদালত বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সদস্য। আইনজীবী থেকে নতুন মন্ত্রিসভায় স্থান পাওয়া ৯ জনের বিষয়টি প্রথম কথাকে নিশ্চিত করেছেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ও ডেপুটি অ্যাটনী জেনারেল বিশ্বজিত রায়।তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগনেতা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু কন্য শেখ হাসিনা নতুন মন্ত্রী সভায় যে ৯ জন আইনজীবী সাংসদকে নিতে যাচ্ছেন। তারা তাদের দেশ ও জাতির জন্য ভাল কাজ করবেন।
তিনি জানান, ৯ আইনজীবীর মধ্যে পূর্ণ মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্বগ্রহণ করতে যাচ্ছেন আ ক ম মোজাম্মেল হক (মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী), আনিসুল হক (আইন মন্ত্রী), শ ম রেজাউল করিম (গণপূর্ত মন্ত্রী), নুরুল ইসলাম সুজন (রেলমন্ত্রী), ডা. দীপু মনি (শিক্ষা মন্ত্রী), ও নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন (শিল্পমন্ত্রী)।

এছাড়া প্রতিমন্ত্রী হতে যাচ্ছেন জুনায়েদ আহমেদ পলক (তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রী) এবং মাহবুব আলী (বিমান মন্ত্রী)। এছাড়া উপমন্ত্রী হতে যাচ্ছেন মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল (শিক্ষা মন্ত্রী)।

এর আগে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম আজ রোববার সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রিপরিষদের তালিকা আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করেন। এরই মধ্যে তাদের দফতরও বণ্টন করে দেয়া হয়েছে। আজ সোমবার তাদের শপথ পড়ানো হবে। এরপর নিজ নিজ কর্মস্থলে কাজ শুরু করবেন তারা।
সুপ্রিম কোর্টের আরেক আইনজীবী আনিসুল হক ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৪ নং (কসবা) আসন থেকে সংসদ সদস্য (এমপি) নির্বাচিত হন। দশম জাতীয় সংসদেও তিনি আইনমন্ত্রীর দায়িত্বে ছিলেন।
এবাই প্রথম সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির (বারের) সাবেক সম্পাদক ও আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক শ. ম রেজাউল করিম পিরোজপুর-১ আসন থেকে সংসদ সদস্য (এমপি) নির্বাচন করেন। প্রথম সাংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হয়ে মন্ত্রী হিসেবেও দায়িত্ব পাচ্ছেন।

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির (বারের) সাবেক আরেক সম্পাদক নুরুল ইসলাম সুজন পঞ্চগড়-২ আসন থেকে একটানা তিন বার সংদস্য সদস্য নির্বাচিত হন।এবারই প্রথম তিনি মন্ত্রী সভায় স্থান পেলেন।
ডা. দীপু মনি চাঁদপুর-৩ (চাঁদপুর- হাইমচর) আসন থেকে নির্বাচিত হন। তিনিও বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সদস্য। দশম সংসদে মন্ত্রিপরিষদে ঠাঁই না পেলেও নবম সংসদে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছিলেন।
বাংলাদেশ সরকারের শিল্প মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পাচ্ছেন নরসিংদী-৪ (মনোহরদী-বেলাব) আসনের সংসদ সদস্য নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন।
এ ছাড়াও বর্তমান মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেয়া মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হককে একই মন্ত্রণালয়ের আগের দায়িত্বেই দেয়া হয়েছে।
সুপ্রিম কোর্টের আরেক আইনজীবী মাহবুব আলী হবিগঞ্জ-৪ আসন থেকে সংসদ সদস্য (এমপি) নির্বাচিত হয়েছেন।তাকে বেসরকারী বিমান ও পর্যাটন মন্ত্রণালয়ের দ্বায়িত্ব দেওয়া হচ্ছে।
এ ছাড়া জুনায়েদ আহমেদ পলক নাটোর-৩ আসন থেকে এমপি নির্বাচিত হন। যদিও তিনি এখন সরাসরি আইন পেশায় জড়িত নন।
এছাড়া আইনজীবী মুহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল চট্টগ্রাম ৯ আসন থেকে সংসদ সদস্য (এমপি) নির্বাচিত হন। এবারই প্রথম এমপি হয়ে শিক্ষা উপমন্ত্রীর দায়িত্ব পাচ্ছেন।

শপথ নেয়ার জন্য ইতোমধ্যে তারা টেলিফোনে ডাক পেয়েছেন। আজ সোমবার (৭ জানুয়ারি) বঙ্গভবনে তারা শপথ নেবেন। রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদ শপথ বাক্য পাঠ করাবেন।
এছাড়া এবারের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন মোট ২৭ আইনজীবী।
তারা হলেন- রংপুর-৬ : শিরীন শারমিন চৌধুরী,ঢাকা-১০ : শেখ ফজলে নূর তাপস, ঢাকা-১৮ : সাহারা খাতুন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৪ : আনিসুল হক, ঢাকা-২ : কামরুল ইসলাম, কুমিল্লা-৫: আবদুল মতিন খসরু,গাজীপুর-১ : আ. ক. ম. মোজাম্মেল হক, পিরোজপুর-১ : শ ম রেজাউল করিম,পঞ্চগড়-২: নূরুল ইসলাম সুজন,বরগুনা-১: ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু, নাটোর-৩ : জুনাইদ আহমেদ পলক,চাঁদপুর-৩ : ডা. দীপু মনি, মাগুরা-১: সাইফুজ্জামান শিখর, হবিগঞ্জ-৪ : মাহবুব আলী, পটুয়াখালী-১ : শাহজাহান মিয়া, টাঙ্গাইল-৮ : জোয়াহেরুল ইসলাম ভিপি জোয়াহের, ময়মনসিংহ-৬ : মোসলেম উদ্দিন, হবিগঞ্জ-২ : আবদুল মজিদ খান, হবিগঞ্জ-৩ : মো. আবু জাহির, চট্টগ্রাম-৯ : মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, গাইবান্ধা-৫ : ফজলে রাব্বি মিয়া, মুন্সিগঞ্জ-৩ : মৃণাল কান্তি দাস, , বগুড়া-৩ : নুরুল ইসলাম তালুকদার, কিশোরগঞ্জ-৩: মুজিবুল হক চুন্নু, চট্টগ্রাম-৫: আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, গাইবান্ধা-১: শামীম হায়দার পাটোয়ারী এবং সুনামগঞ্জ-৪ : পীর ফজলুর রহমান।

Top