সকাল ৯:০২
বিএনপি’র শুভ বুদ্ধির উদয় হবে : আইনমন্ত্রীদুর্নীতির বিরুদ্ধে সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা : প্রধানমন্ত্রীদুর্নীতির বিরুদ্ধে সবরকম ব্যবস্থা গ্রহণ করবোস্ত্রীর জন্মদিন ভুললেই ডিভোর্স!স্বজনপ্রীতি হচ্ছে দুর্নীতির উল্টো পিঠযেই দুর্নীতি করুক ছাড় দেয়া হবে না : গণপূর্তমন্ত্রীআন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২০১৯ এর আন্তঃমন্ত্রণালয় সভাপ্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা হলেন জয়সৌদির ধর্মত্যাগী সেই কিশোরী নাম পাল্টালেনজাতিসংঘের এক তৃতীয়াংশ কর্মীই যৌন হয়রানির শিকার

জেএসসিতে ৮৫.২৮ ও পিইসিতে ৯৭.৫৯ শতাংশ পাস

নিজস্ব প্রতিবেদক:

প্রাথিমক ও ইবতেদায়ি সমাপনী (পিইসি), জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) এবং জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষার ফলের সারসংক্ষেপ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।
সোমবার (২৪ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে ফলের সারসংক্ষেপ তুলে দেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার। পরে প্রধানমন্ত্রী অনলাইন সিস্টেমে পিইসি ও অন্য পরীক্ষার ফল প্রকাশ এবং শিক্ষার্থীদের মধ্যে নতুন বছরের নতুন বই বিতরণ করে বিনামূল্যের পাঠ্যপুস্তক বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন।
এবার জেএসসিতে পাসের হার ৮৫.২৮ শতাংশ এবং জেডিসিতে ৮৯.০৪ শতাংশ। জেএসসিতে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৬৮ হাজার ৯৫ জন শিক্ষার্থী। গত কয়েক বছরের তুলনায় এবার জিপিএ-৫ কমেছে।
চতুর্থ বিষয় ছাড়াই ফল নির্ধারণ করায় এবার জিপিএ-৫ কমেছে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী। এবার শতভাগ পাস করেছে ৪ হাজার ৭৬৯ প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা।
অন্যদিকে পিইসিতে এবার পাসের হার ৯৭.৫৯ শতাংশ। পিইসিতে জিপিএ-৫ পেয়েছেন ৩ লাখ ৬৮ হাজার ১৯৩ জন শিক্ষার্থী। এছাড়া ইবতেদায়িতে পাসের হার ৯৭.৬৯। জিপিএ-৫ পেয়েছেন ১২ হাজার ২৬৮জন।
অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, প্রাথমিক ও অষ্টম শ্রেণির পরীক্ষার অনেকেই সমালোচনা করেন। তবে এই পরীক্ষার মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের মধ্যে আত্মবিশ্বাস গড়ে উঠছে। পরীক্ষায় অংশগ্রহণ এবং সার্টিফিকেট পাওয়ার বিষয়টি তাদের সামনের দিকে এগিয়ে যাওয়ার উৎসাহ হিসেবে কাজ করছে।

Top