বিকাল ৩:৫১
ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে তারেক সাক্ষাৎকার নিচ্ছেনথার্টিফার্স্ট নাইটে কোনো অনুষ্ঠান নয় : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীআজকের সংখ্যা ১৮/১১/১৮দিনাজপুরে তিনদিন ব্যাপী প্রাণ চিনিগুড়া চাল নবান্ন উৎসব পালিতআজকের সংখ্যা ১৫/১১/১৮সোয়া দুই কোটি টাকায় বিক্রি হলো আত্মহত্যার চিঠিপালিত হচ্ছে বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবসনির্বাচন নিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর কূটনীতিক ব্রিফ বৃহস্পতিবারচাঁপাইনবাবগঞ্জে সম্প্রীতি বাংলাদেশের সমাবেশআজকের সংখ্যা ১৪/১১/১৮

কর্মক্ষেত্রে নারী কর্মীদের হয়রানি

ডেস্ক: সোমবার জাতীয় সংসদে সিলেট-৬ আসনের সংসদ সদস্য সেলিম উদ্দিনের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী একথা বলেন।
তিনি বলেন, কর্মক্ষেত্রে নারী কর্মীদের হয়রানি বন্ধ ও নিরাপদ অভিবাসন নিশ্চিতের জন্য বিভিন্ন উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এরমধ্যে আইনজীবী নিয়োগ করে আইনগত সহায়তা প্রদান, প্রতিকার পাওয়ার জন্য প্রবাসবন্ধু কলসেন্টার চালু করাসহ ওমান ও সৌদি আরবের জেদ্দা ও রিয়াদে সেইফ হোম প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে।
প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রী বলেন, সরকার বিনা খরচে নারীকর্মীদের বিদেশ প্রেরণ করছে। বিদেশ গিয়ে প্রতারিত হলে বিএমইটি বা মন্ত্রণালয়ে সরাসরি অভিযোগ দাখিল করে প্রতিকার পাওয়ার সুযোগ রাখা হয়েছে। অভিবাসনে স্বচ্ছতা আনার জন্য টাস্কফোর্স গঠন করা হয়েছে। এছাড়া বিদেশ গিয়ে যাতে ভাষাগত কোনো সমস্যায় পড়তে না হয়, সেজন্য জাপানিজ, আররি, ইংরেজি ও কোরিয়ান ভাষা প্রশিক্ষণ কোর্স চালু করা হয়েছে। তাদের জন্য একমাসের প্রশিক্ষণ বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। তবে দক্ষ কর্মীদের কর্মক্ষেত্রে হয়রানির ঝুঁকি কম, বেতন-ভাতাও বেশি।
মানিকগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য মমতাজ বেগমের এক লিখিত প্রশ্নের জবাবে নুরুল ইসলাম বিএসসি বলেন, ২০১৭ সালে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে বাংলাদেশি ৩ হাজার ২৬৩ জনের মৃতদেহ দেশের ৩টি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর দিয়ে আনা, পরিবহন ব্যয় ও দাফন খরচ বাবদ আর্থিক সাহায্য হিসেবে তাৎক্ষণিকভাবে প্রত্যেক মৃতকর্মীর পরিবারকে ৩৫ হাজার টাকা করে মোট ১১ কোটি ৪১ লাখ ৩৫ হাজার টাকা খরচ হয়েছে।
মন্ত্রীর দেয়া তথ্য অনুযায়ী ওয়েজ কল্যাণ বোর্ড হতে প্রবাসী মৃতকর্মীর পরিবার প্রতি ৩ লাখ টাকা করে ২০১৭ সালে ৩ হাজার ৫০৫ কর্মীর পরিবারকে ১০১ কোটি ১৬ লাখ ৩০ হাজার টাকা আর্থিক অনুদান দেয়া হয়েছে। এছাড়া প্রবাসে মৃত্যুবরণকারী কর্মীর ইন্সুরেন্স বাবদ ১ হাজার ১৪২ কর্মীর অনুকূলে ৬৯ কোটি ৩৫ লাখ টাকা ওয়ারিশদের মধ্যে বিতরণ করা হয়েছে। এছাড়া ২০১৭ সালে ২ হাজার ৩৪৩ জন প্রবাসীকর্মীর মেধাবী সন্তানকে ১ কোটি ৬৭ লাখ টাকা শিক্ষাবৃত্তি দেয়া হয়েছে।
সুকুমার রঞ্জন ঘোষের এক প্রশ্নের জবাবে নুরুল ইসলাম বিএসসি জানান, বর্তমানে বিশ্বের ১৬৫টি দেশে ১ কোটির বেশি কর্মী কর্মরত। শুধু মাত্র মধ্যপ্রাচ্যের সংযুক্ত আরব আমিরাতে বাংলাদেশি ২৩ লাখ ৩৫ হাজার ৮৭৩ কর্মী গমন করেছেন।
মহিলা এমপি বেগম সানজিদা খানমের তারকা চিহ্নিত প্রশ্নের জবাবে প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকারের দ্বিতীয় মেয়াদে (১ জানুয়ারি ২০১৪ থেকে ৩১ মে ২০১৮ পর্যন্ত) ৩০ লাখ ৯৪ হাজার ৮৪৮ কর্মী বিদেশে কর্মসংস্থান লাভ করেছেন। এরমধ্যে ২০১৭ সালেই বিদেশ গেছেন ১০ লাখ ৮ হাজার ৫২৫ জন।
সংসদে দেয়া মন্ত্রীর তথ্য অনুযায়ী ২০১৪ সালে বিদেশ গেছেন ৪ লাখ ২৫ হাজার ৬৮৪ জন। ২০১৫ সালে বিদেশ গেছেন ৫ লাখ ৫৫ হাজার ৮৮১ জন। ২০১৬ সালে বিদেশ গেছেন ৭ লাখ ৫৭ হাজার ৭৩১ জন। ২০১৮ সালের মে মাস পর্যন্ত বিদেশ গেছেন ৩ লাখ ৪৭ হাজার ২৭ জন।
মন্ত্রী বলেন, মধ্য প্রাচ্যের সংযুক্ত আরব আমিরাতে আমাদের সবচেয়ে বড় শ্রম বাজার।

Top