সন্ধ্যা ৭:০২
শহীদ সন্তান সুমন জাহিদের মৃত্যু রহস্য উদ্ঘাটনে সুষ্ঠু তদন্তের জোর দাবী : প্রজন্ম’৭১ঈদের ছুটি কাটিয়ে ঢাকা ফিরে পাচ্ছে আগের চেহারাসকালের বৃষ্টিতে মানুষের দেহমনে স্বস্তিআজ আওয়ামী লীগের যৌথসভাআজিজ আহমেদ নতুন সেনাপ্রধানদক্ষিণ কোরিয়াকে হারিয়ে বিশ্বকাপ শুরু সুইডেনেরসৌদিতে আগুনে পুড়ে দুই বাংলাদেশির মৃত্যুকুয়াকাটা সৈকত জুড়ে পর্যটকের উপচে পড়া ভীড়রংপুরে২ নারী ক্রিকেটারকে সংবর্ধকর্মক্ষেত্রে নারী কর্মীদের হয়রানি

শেষ মুহুর্তেও কেনা-বেঁচা নেই ঝিনাইদহের ইদ বাজারে

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি : শেষ মুহুর্তেও জমে ওঠেনি ঝিনাইদহের ইদ বাজার। বিশেষ করে নিন্ম আয়ের মানুষ ও কৃষকদের হাতে নেই টাকা তাই কেনা-কাটায় মনোযোগ নেই তাদের। ব্যবসায়ীরা বলছে শার্ট-প্যান্ট, পাঞ্জাবি সহ নতুন নতুন হরেক রকমের কাপড়ের পসরা সাজিয়ে বসলেও প্রত্যাশিত কেনা-বেচা নেই। গ্রামাঞ্চলের মানুষ ও কৃষকশ্রেণী সদ্য শেষ হওয়া বোরো মৌসুমে প্রাকৃতিক দুর্য়োগের শিকার হওয়ায় তাদের হাতে পয়সা নেই তাই এবার মার্কেটের দিকে খুব কম মানুষ আসছে বলে জানিয়েছে ব্যবসায়ীরা ।
বছর শেষে কড়া নাড়ছে আনন্দের ইদ কিন্তু আনন্দ বা উৎসবের ছোয়া তেমন একটা লাগেনি কৃষি নির্ভর ঝিনাইদহের গ্রামাঞ্চলের মানুষের মনে। সদ্য শেষ হওয়া বোরো মৌসুমে মাঠের ধানে অতিবৃষ্টি-ঝড় সহ প্রাকৃতিক দুর্যোগে ঘরে ওঠেনি প্রত্যাশিত ফসল। তার প্রভাব পড়েছে ইদ বাজারে। ফলে কৃষক, নিন্ম আয়ের মানুষ ও দারিদ্র পরিবারগুলোতে চলছে টান-পোড়েন। তাই পরিবার-পরিজনের জন্য ইদের কেনা-কাটায় নেই তাদের মনোযোগ।
জেলার ৬টি উপজেলা শহরে কেনাকাটার চিত্রও প্রায় একই। তবুও বছরের একটি দিন কে কিছুটা আনন্দমুখোর করতে অনেকেই এসেছে ইদ মার্কেটে। সহজলভ্য কিছু পোষাকের দিকে নজর তাদের। শার্ট-প্যান্ট, শাড়ি, পাজামা সহ কিছু নতুন পোষাক কিনতে চেষ্টা করছে কৃষক পরিবারের অভিভাবকেরা।
ইদ উপলক্ষে অনেকে ইমিটেশনের গহনা সহ কিছু প্রসাধনী কিনছে তবে সেখানেও মন্দা ভাব ।
নিন্ম আয়ের মানুষের কেনা-কাটার মার্কেট হিসাবে পরিচিত ঝিনাইদহ জেলা শহরের কেসি কলেজ মার্কেট, হাটের রাস্তার মসজিদ মার্কেট সহ কয়েকটি মার্কেট ঘুরে দেখা গেছে, ব্যবসায়ীরা হরেক রকমের কাপড়ের পসরা সাজিয়ে বসেছে। কিন্তু ইদ বাজারের প্রায় শেষ মুহুর্তেও নেই প্রত্যাশিত বেঁচা-কেনা । কৃষকের হাতে টাকা না থাকায় পরিবার-পরিজন নিয়ে স্বাচ্ছন্দে তারা মার্কেট করতে পারছে না বলে জানান ব্যবসায়ীরা । ঝিনাইদহের মসজিদ মার্কেটের সভাপতি আমিনুল ইসলাম হিরু জানান, বিভিন্ন ধরনের পোষাকের পসরা সাজিয়েছে বিক্রেতা, ব্যবসায়ীরা তবে এবার তুলনামূলক বেঁচা-কেনা কম হচ্ছে ।

Top