রাত ৮:২২
‘কোটা ইস্যুতে ছাত্রলীগকে সতর্ক করেছেন প্রধানমন্ত্রী’'কীভাবে আবিষ্কার করলাম যে আমার স্বামীর আরেকটি স্ত্রী আছে'আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সভা সোমবারখালেদা জিয়া খুবই অসুস্থ, জানালেন আইনজীবিদেশে পৌঁছেছে রাজীব মীরের মরদেহজাপানে দাবদাহ: আরো অন্তত ১১ জনের প্রাণহানিঋতুপর্ণা ঢাকাতে ‘জ্যাম’ ছবির মহরতেপর্ষদ সভা করবে ব্রাক ব্যাংকবিডি ফিন্যান্স লিমিটেডের সভা ২৫ জুলাইখালেদার দণ্ডের আপিল শুনানি আজ

মাদারীপুরে অসামাজিক কার্যকলাপে ৪৮ বছরের বুড়ো সহ এক নারী গ্রেফতার

মাদারীপুর প্রতিনিধি : মাদারীপুর শহরের একটি আবাসিক হোটেল থেকে গত সোমবার আনুমানিক দুপর ১টা ৩০ মিনিটের সময় অসামজিক কার্যকলাপের অভিযোগে কালকিনির কালাই সরদারের চর গ্রামের মোঃ মোকসেদ বেপারী(৪৮) ও পাশের গ্রামের হামিরুন বেগম (৪৫) দুইজনকে আটক করেছেন মাদারীপুর থানা পুলিশ।
কতিপয় কয়েকটি গনমাধ্যম এস আই আঃ রশীদের বিরুদ্ধে টাকা চাওয়ার অভিযোগ আসলে এ বিষয়ে এস আই আঃ রশীদের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, মাতৃশরন ইন্ট্রারন্যাশনাল নামে একটি দোকানে ফটো কপি করার সময় পাশে চায়ের দোকনে চা খাওয়ার জন্য বাহির হইলে হঠাৎ ২ জন বয়স্ক লোক এক জন পুরুশ ও আর এক জন নারী আনুমানিক ১টা ৩০ মিনিটের সময় আবাসিক হোটেলের দিকে প্রবেশ করতে দেখেলে । তাদের চালচলন দেখে সন্দেহ হলে তিনি জেলা গোয়েন্দা শাখার অফিসার্স ইনচার্জ সুকদেব রায় কে অবগত করেন। তিনি বিষয়টি যাচাই করে দেখতে বলার অনুমতি দেন। এসময় এস আই আঃ রশীদ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে হোটেলে প্রবেশ করে বোডার মোঃ মোকসেদ বেপারী(৪৮) ও হামিরুন বেগম (৪৫) দের জিজ্ঞাসা করলে । প্রাথমিক ভাবে তাহারা তাহাদের বাড়ি শরীয়াতপুর বলে যানায়। পরবর্তীতে খুনেরচর গ্রামের কথা বললে কোন বাড়ি জিজ্ঞাসা করলে বলে, স্যার প্রকৃত পক্ষে আমাদের বাড়ি সমিতির হাট,কালাই সরদারেরচর গ্রামে। সমিরিহাটে আমার একটি মিষ্টির দোকান আছে। স্যার আমার বাড়ির কেউ জেন না জানে এ ঘটনা। আমার কাছে যা টাকা আছে আপনাকে দিয়ে দিচ্ছি আমাকে ছেড়ে দিন। কিন্তু এস আই আঃ রশীদ টাকা গ্রহন না করে তাহাকে পারিবারিক ভাবে সংশোধন করার জন্য তাহার স্ত্রীর বড় ভাইকে ফোন দিলে,তিনি ঘটনার কথা শুনে ঘটনা স্থলে ছুটে আসার কথা বলেন। এসময় সদর থানার এস আই নুরুল ইসলাম ঘটনা স্থলে পৌছাইলে এস আই আঃ রশীদ ওসি ডিবিকে অবগত করলে মোঃ মোকসেদ বেপারী (৪৮) ও হামিরুন বেগমকে (৪৫) সদর থানার এস আই কে বুঝিয়ে দিতে বললে তাদেরকে বুঝিয়ে দিয়ে তিনি ঘটনা স্থল থেকে চলে আসেন। কতিপয় কয়েকটি গনমাধ্যম তাহার বিরুদ্ধে টাকা চাওয়ার অভিযোগের আসার বিষয়টি জানতে চাইলে এস আই আঃ রশীদ বলেন, এটি একটি ভিত্বিহীন বানোয়াট কথা। আমাকে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য এসব কথা বলেছে। আমার বিরুদ্ধে এসব মিথ্যা বানোয়াট কথার অভিযোগের আমি প্রতিবাদ যানাই।
এবিষয়ে মোঃ মোকসেদ বেপারী(৪৮) স্ত্রীর বড় ভাই পুর্ব এনায়েত নগর ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের সাবেক নির্বাচনী চেয়ারম্যান প্রার্থী আলহাজ¦ মোঃ বাদল তালুকদারের কাছে টাকার বিষয়টি যানতে চাইলে তিনি বলে,ডিবির এস আই আঃ রশীদের সাথে আমার এবিষয়ে ফোনে অনেক কথা হয়েছে । আমার জানামতে তিনি একজন ভালো অফিসার । আমাকে বিষয়টি না জানালে বিয়টি অনেক বড় আকার ধারন করত। আমি তাকে ধন্যবাদ যানাই। তিনি কোন টাকা পয়সা চায়নি আর টাকা পয়সা যদি তিনি চাইতো তাহলে আমি অবশ্যই জানতাম। তবে এসব কথা জদি আমার বোন জামাই বলে থাকে তাহলে মিথ্যা বলেছে অথবা ওই অফিসার ছেড়ে না দেয়ার কারনে তাকে হেয় প্রতিপন্ন করার ন্য এসব কথা বলতে পারে।
মাদারীপুর গোয়েন্দা শাখার ওসি সুকদেব রায়ের কাছে বিষয়টি যানতে চাইলে তিনি বলেন,হোটেলে অসামাজি কাজ হচ্ছে এমন খবর পেয়ে আমাদের এস আই আঃ রশীদকে সেখানে পাঠানো হয়। পরে থানা পুলিশ ও চলে আসে। এরপর থানা পুলিশের কাছে অপরাধী মোকসেদ বেপারী(৪৮) ও হামিরুন বেগম (৪৫) নামে দুই জনকে হস্তান্তর করে ঘটনা স্থল থেকে চলে আসে।
মাদারীপুর সদর মডেল থানার এস আই নুরুল ইসলামের কাছে এবিষয় জানতে চাইলে তিনি বলেন, মোকসেদ বেপারী(৪৮) ও হামিরুন বেগম (৪৫)তাহারা স্বাামী- স্ত্রী পরিচয় দিয়ে শহরের একটি আবাসিক হোটেলে উঠেছে । আথচ তাহারা সম্পর্কে বিয়াই-বিয়াইন। হোটেল থেকে তাদের কে গ্রেফতার করে আদালদে প্রেরন করি। এস আই আঃ রশীদের বিরদ্ধে যে অভিযোগ উঠেছে তা সত্য নয়, কারন ঘটনা স্তলে আমি নিজেই ছিলাম। তিনি শুধু তাদের ঠিকানা কোথায় এসব কথা জিজ্ঞাসা করেছেন। এছাড়া আর কিছুই নয়। তবে যাবা অপরাধী তারা তাদের সার্থে ব্যাঘাত ঘটলে এসব কথা বলতেই পারে।

Top