রাত ৯:২৮
পবিত্র আশুরা শুক্রবারখালেদা জিয়ার অনুপস্থিতিতে মামলার কার্যক্রম চলবেএকজন নারী দেহরক্ষীর গোপন জীবনদুই রাষ্ট্রদূতের রাষ্ট্রপতির কাছে পরিচয়পত্র পেশসুস্থ চোখে পৃথিবীর সৌন্দয্য উপভোগ করুনটাইগারদের ভাবনায় এখন সুপার ফোরমালয়েশিয়ায় বিষাক্ত মদপানে বাংলাদেশিসহ ২১ জনের মৃত্যুতিন দিনের সফরে রংপুর গেলেন এরশাদ‘যৌনতায় অপটু’ ট্রাম্প; ফের বোমা ফাটালেন স্টর্মিসংসদে ডিজিটাল নিরাপত্তা বিল ২০১৮ পাস

আর কখনও গান গাইবেন না আরেফিন রুমী

ডেস্ক: জনপ্রিয় সঙ্গীতশিল্পী ও সঙ্গীত পরিচালক আরেফিন রুমি আর কখনও গান গাইবেন না। গত ৫ মার্চ তাঁর ভেরিফায়েড ফেসবুক হ্যান্ডেলে এ তথ্য নিজেই জানিয়েছেন আরেফিন রুমী। বেশ কিছুদিন ধরে তিনি গানের জায়গা থেকে দূরে। ভক্তরা থেকে শোবিজ পাড়া সবখানেই এ নিয়ে কথাবার্তা চলছিল।

এরই মাঝে আরেফিন রুমীর এমন ঘোষণা অবাক করেছে ভক্তদের। রিদওয়ান নামের এক ভক্ত লিখেছেন, ২০১১-২০১৩ সালের বাংলাদেশ মিউজিক ইন্ডাস্ট্রির রাজা আরফিন রুমী আজ নিজ থেকেই তাঁর ভক্তদের কাঁদিয়ে সংগীত থেকে অবসর নিলেন!সত্যিই খুব খারাপ লাগছে ….বস ফিরে আসুন…’

আরেফিন রুমী বলেছেন, ‘ভাসিয়ে না দিলে তো কবুল করেন না, আশা করছি আমাকে আর কখনো কোথাও গান গাইতে দেখবেন না। ইনশাল্লাহ যেমিওন আমার মরণ কালেও ফিরে আসা… ‘

উইকিপিডিয়া বলছে, ‘২০১১ থেকে ২০১৩ পর্যন্ত বাংলা গানের একতরফা রাজত্ব ছিল তার। বাংলাদেশে তিনিই একমাত্র সংঙ্গীতশিল্পী যার আমেরিকাতেও স্টুডিও আছে।’

এর আগে ছোটবেলায় তিনি তার মায়ের কাছ থেকে গান শিখেছেন। হাবিব ওয়াহিদ ও ফুয়াদ আল মুক্তাদির ছিল প্রেরণার উৎস। গানের ব্যাপারে তাদের কাছ থেকে অনেক সহযোগিতাও পেয়েছিলেন। তিনি এ আর রহমান এর কাজগুলো দ্বারা প্রভাবিত হয়েছিলেন। গানের জগতে আসার আগেই(২০০৬সালে) মডেল এর খাতায় নাম লিখিয়েছিলেন।

ধারণা করা হচ্ছে ধর্মীয় বিষয়ে আরেফিন রুমী গভীর মনোযোগী হয়েছেন যার কারণে তাকে আর গানে দেখা যাচ্ছে না। অদৌ গানে ফিরবেন না কি না, এ ঘোষণার পর সেটা আরো অস্পষ্ট হয়ে গেল।

Top