প্রথম দেখায় যে প্রশ্নগুলো করবেন

ডেস্ক: পছন্দের মানুষটির সঙ্গে প্রথম দেখা সব সময় যে আমাদের স্বপ্নের মতো হয়- এমন কিন্তু নয়। বেশিরভাগ সময়েই কেমন আছেন, কী করছেন, প্রিয় শখ কী এইসব প্রশ্নের পরে আর কোনো প্রশ্ন খুঁজে পাওয়া যায় না। আর তখন দুজনের মাঝেই ভর করে অনাকাঙ্ক্ষিত নীরবতা। অনেক সময় সঠিক প্রশ্ন খুঁজে পাওয়া কঠিন হয়ে দাঁড়ায়। কিন্তু সঠিক প্রশ্নগুলো যদি নাই করতে পারেন তবে সঙ্গীর সম্পর্কে জানবেন কী করে!

যে কাজ করছেন সেটি পছন্দ কি না?
এটি বেশ কমন একটি প্রশ্ন হলেও এর মাধ্যমে তার স্বভাব সম্পর্কে সহজেই বুঝতে পারবেন। যেমন, যদি সে সত্যিই নিজের কাজকে ভালোবাসে তবে তাকে একজন সুখী মানুষ হিসেবে ধরে নিতে পারেন। এমন যদি হয়, যে কাজটি সে করছে কিন্তু তা পছন্দের নয়, তবে পেশাগত জীবনে পরিবর্তন আনার চেষ্টা করছে তাকে একজন উদ্যোগী মানুষ ভাবতে পারেন। আর যদি সে তার কাজটিকে পছন্দ না করে, পরিবর্তনের চেষ্টাও না করে তবে তাকে হতাশাবাদীই বলা যায়!

সাপ্তাহিক ছুটি কিভাবে কাটান?
কোনো ব্যক্তি তার ছুটির দিন বিশেষ করে সাপ্তাহিক ছুটির দিন কিভাবে কাটান তা দেখেও আপনি তার ব্যক্তিত্ব সম্পর্কে ধারণা পেতে পারেন। ছুটির দিনে যদি সে বাসায় থেকে বাসার টুকিটাকি কাজে সাহায্য করে, রাতভর পার্টি করে, কাছে কোথাও বেড়াতে যায়, পরিবারের সঙ্গে সময় কাটায় কিংবা শখের কাজে সময় দেয় আপনি তখন সহজেই তার পছন্দ-অপছন্দের বিষয়গুলো সম্পর্কে ধারণা পাবেন।

প্রিয় বন্ধুর কোন দিকটি সবচেয়ে বেশি পছন্দ?
এই প্রশ্নটি আপনাকে বুঝতে সাহায্য করবে, মানুষের কোন বৈশিষ্ট্যগুলো তার কাছে প্রশংসনীয়। প্রশ্নের উত্তর মনে রাখুন। তাতে করে পরবর্তীতে তাদের বন্ধুত্বের মান সম্পর্কে বুঝতে পারবেন। সে নানা বিষয়ে তার বন্ধুর প্রশংসা করতে পারে এবং তাতে আপনি বুঝতে পারবেন সে তার সঙ্গীর কাছ থেকে ঠিক কোন বিষয়গুলো আশা করছে।

দশ লাখ টাকা পেলে কিভাবে খরচ করবেন?
এটি সবার জন্যই মজার একটি প্রশ্ন। এবং এর উত্তরও একেকজন একেকভাবে দিয়ে থাকেন। এটি তার সম্পর্কে অনেককিছু বুঝতে সাহায্য করবে। সেকি সব টাকা ভ্রমণে খরচ করবে? নাকি এর একটি অংশ এতিমখানা কিংবা বৃদ্ধাশ্রমে দান করবে? অথবা নতুন কোনো বাড়ি কিনবে? নাকি সেই টাকা দিয়ে ব্যবসা শুরু করবে? যেকোনো উত্তরই তার ধরন সম্পর্কে সহজ ধারণা দেবে। সে দুঃসাহসী না পরোপকারী, আবেগী নাকি বাস্তববাদী তাও বুঝতে পারবেন। এর উত্তর আপনাকে তার স্বপ্ন এবং জীবনের লক্ষ্য সম্পর্কেও ধারণা দেবে।

সূত্র:জাগোনিউজ/হাবীবাহ্ নাসরীন