ভোর ৫:৫৬
ফুলবাড়ীতে দু’টি ইউনিয়ন পরিষদে উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণামাদারীপুরে র‌্যাব-৮ কর্তৃক নকল ৬টন সেমাই ধ্বংসমাদারীপুরে পদ্মায় নিখোঁজ লঞ্চ যাত্রীর লাশ উদ্ধারমমতা’র কিশোর-কিশোরী নির্বাচন কর্মশালাফরিদপুরে আটক মেছোবাঘ, দুটি পালিয়ে যাওয়ায় আতংকে এলাকাবাসীযুক্তরাষ্ট্রের সিনেটর পদে বিজয়ী বাংলাদেশি চন্দনসেহরি ও ইফতারে সঠিক খাবার নির্বাচন করা গুরুত্বপূর্ণতাসফিয়া হত্যা মামলার আসামী আশিক গ্রেফতারসালমান খানের প্রেমিকা দিশাতাজিনের কুলখানি শুক্রবার

প্রধান তথ্য কমিশনার মরতুজা আহমদের যোগদান

ডেস্ক : নবনিযুক্ত প্রধান তথ্য কমিশনার হিসেবে তথ্য কমিশনে যোগদান করেছেন মরতুজা আহমদ।

বৃহস্পতিবার সকালে তিনি কাজে যোগদান করেছেন। তিনি অধ্যাপক গোলাম রহমানের স্থলাভিষিক্ত হলেন।

এর আগে বুধবার তথ্য অধিকার আইন অনুযায়ী রাষ্ট্রপতি প্রাক্তন তথ্যসচিব মরতুজা আহমদকে ওই পদে নিয়োগ দিয়েছেন জানিয়ে আদেশ জারি করে তথ্য মন্ত্রণালয়ের প্রেস-২ শাখা।

প্রধান তথ্য কমিশনার হিসেবে মরতুজার পদমর্যাদা, পারিশ্রমিক, ভাতা এবং অন্যান্য আনুষঙ্গিক সুবিধা সরকার নির্ধারণ করবে।

তথ্য সচিব থাকাকালে মরতুজা আহমদের অবসরোত্তর ছুটি (পিআরএল) বাতিল করে ২০১৬ সালের ২৩ ডিসেম্বর থেকে এক বছরের চুক্তিতে ওই পদেই নিয়োগ দেয় সরকার।

সুনামগঞ্জে জন্ম নেওয়া মরতুজা ১৯৮২ সালে বিশেষ বিসিএস ব্যাচের কর্মকর্তা। তথ্য সচিবের দায়িত্ব পাওয়ার আগে তিনি মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব, পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয় এবং ভূমি মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম-সচিবের দায়িত্বে ছিলেন।

রাষ্ট্রায়ত্ত সংবাদ সংস্থা বাসসের চেয়ারম্যানের দায়িত্বে থাকার সময় ২০১৬ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক গোলাম রহমানকে প্রধান তথ্য কমিশনার নিয়োগ দেয় সরকার।

পাঁচ বছরের জন্য প্রধান তথ্য কমিশনার নিয়োগ দেওয়া হলেও সর্বোচ্চ ৬৭ বছর বয়স পর্যন্ত কেউ ওই পদে দায়িত্ব পালন করতে পারেন।

গত ৬ জানুয়ারি গোলাম রহমানের মেয়াদ শেষ হয়। ৫ ও ৬ জানুয়ারি শুক্র ও শনিবার থাকায় ৪ জানুয়ারি তথ্য কমিশনে শেষ অফিস করেন তিনি।

গোলাম রহমানের মেয়াদ শেষে তথ্য কমিশনার নেপাল চন্দ্র সরকার ভারপ্রাপ্ত প্রধান তথ্য কমিশনারের দায়িত্বে ছিলেন।

তথ্য কমিশনে একজন প্রধান কমিশনার ছাড়াও ‍কমিশনার হিসেবে দুইজন দায়িত্ব পালন করেন।

Top