সালমান খানকে হত্যার পরিকল্পনা!

ডেস্ক: সালমান খানকে হত্যার ষড়যন্ত্র চলছে- এমন খবরে মুম্বাইয়ে এখন তোলপাড়। এখন সম্প্রতি হত্যার হুমকি পেয়েছিলেন বলিউড অভিনেতা সালমান খান। এবারে সত্যি সত্যিই তাকে মারতে তার সিনেমার সেটে পৌঁছে গেছে সশস্ত্র সন্ত্রাসী। আর তার কারণেই থেমে গেছে নতুন সিনেমা ‘রেইস থ্রি’র শুটিং।

নতুন বছর শুরুর প্রথম সপ্তাহে সালমানকে হত্যার হুমকি দেন গ্যাংস্টার লরেন্স বিষ্ণোই। গত ৫ জানুয়ারি ভারতের যোধপুর আদালত চত্বরে বলিউড সুপারস্টার সালমান খানকে এই হত্যার হুমকি দেওয়া হয়। তিনি জোধপুরে গণমাধ্যমকে বলেছিলেন, ‘সালমান খানকে জোধপুরে অবশই খুন করা হবে। তখন তিনি আমাদের আসল পরিচয় জানতে পারবেন। এখন পুলিশ যদি চায় আমি বড় ধরণের অপরাধ ঘটাই, তাহলে আমি নিজেই সালমানকে এই জোধপুরেই খুন করবো।’

তবে জোধপুরের বাইরে সালমান নিরাপদ- এই ধারণা করা হলেও মুম্বাইয়েই তাকে মারতে তিন সশস্ত্র সন্ত্রাসী ফিল্ম সিটিতে ঘুরছে- এই তথ্য পায় পুলিশ। এর পরপরই বৃহস্পতিবার ‘রেইস থ্রি’র সেটে পৌঁছায় পুলিশ। সালমানকে পুলিশ সদস্যরা ফিল্ম সিটি থেকে বের হয়ে চলে যেতে বলেন নিজের বাড়িতে। পরবর্তী কয়েকদিনের জন্য বাড়ি থেকে বের না হওয়ারও পরামর্শ দেন তারা।

সালমান খানের বাবা সেলিম খানও ছেলেকে হত্যার হুমকি পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, এটাই প্রথম নয়, এর আগেও সালমানকে হত্যার হুমকি দেয়া হয়েছিল। পরিকল্পনাও করা হয়েছিল। শুধু সালমান নয়, বলিউডের একাধিকজনকে বিভিন্ন সময় এমন হুমকি দেয়া হয়। তবে সালমানের নিরাপত্তায় একটি শক্তিশালী দল নিয়োজিত আছে বলেও জানান সেলিম খান।

পুলিশের কাছ থেকে পরবর্তী নির্দেশনা না পাওয়া পর্যন্ত তাই শুরু হচ্ছে না ‘রেইস থ্রি’র শুটিং। সে পর্যন্ত সতর্ক অবস্থাতেই থাকতে হচ্ছে সালমান খানকে।

পুলিশ জানিয়েছে, বিষ্ণোই হুমকির পর আারো তিনজন সালমানকে হত্যার হুমকি দিয়েছে। শুটিং এলাকায় হামলার আশঙ্কা থেকেই তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে শুটিং বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।