রাত ৩:২৮
‘দহন’ থেকে বাদ পড়লেন বাঁধন!সাফল্য গাঁথা: ফরিদপুরের একজন অদম্য রোকেয়ার গল্প‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১১বার কাউন্সিল নির্বাচনের আনুষ্ঠানিক ফল ঘোষণা ২৬ মেএইচবিআরআই খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদনহা-মীম গ্রুপের এমডিকে দুদকের জিজ্ঞাসাবাদমুক্তিযোদ্ধার অসম্মানজনক দাফনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা : মোজাম্মেল হকরাজীবের দুই ভাইকে ক্ষতিপূরণের আদেশ স্থগিতযুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা, এতিম ও আলেম-ওলামাদের জন্য প্রধানমন্ত্রীর ইফতাররাশিয়ায় দাবানলে ২৩ হাজার হেক্টর বনাঞ্চল ধ্বংস

‘বিএনপি জামায়াত ছাড়লে, আ. লীগ স্বৈরচার এরশাদের সঙ্গ ত্যাগ করবে

ডেস্ক: বিএনপি যদি যুদ্ধপরাধীদের দল জামায়াতের সঙ্গ ত্যাগ করে, তাহলে আমরাও স্বৈরাচার এরশাদের সঙ্গ ত্যাগ করবো বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।তিনি বলেন, খালেদা জিয়া এবং তার দল রাজাকারদের সঙ্গে হাত মিলিয়েছে বলে আওয়ামী লীগ স্বৈরচারের সাথে জোট বেঁধেছে। জাতীয় পার্টির সঙ্গে আওয়ামী লীগের জোট কৌশলগত।

সোমবার (২৭ নভেম্বর) সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল মিলনায়তনে শহীদ ডা. শামসুল আলম খান মিলনের ২৭তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।তিনি বলেন, বিএনপি আজ বলে, গণতন্ত্র খাদে পড়েছে। আসলে মূল কথা হচ্ছে আজ বিএনপির রাজনীতিই খাদের কিনারায়। তারা (বিএনপি) আন্দোলনের নামে অতীতে

পেট্রোলবোমা, ককটেল, আগুন দিয়ে সাধারণ মানুষকে হত্যা করেছে। পুড়িয়ে মানুষ হত্যার চেয়ে জঘন্য আর কী হতে পারে? জনগণ কি সেই যন্ত্রণাময় অতীত ভুলে গেছে?

ওবায়দুল কাদের আরো বলেন, বিএনপি যদি গত সংসদ নির্বাচনে আসতো তাহলে তাদের আজ এই অবস্থা হতো না। কেউ যদি নির্বাচনে না আসে তবে সে দোষ কার? সেই দায়ভার কার? নির্বাচনের ট্রেন তো আর কারো জন্য থেমে থাকে না। তারা সেই ট্রেন মিস করেছে। ৫ জানুয়ারির নির্বাচনের আগে ও পরে আগুন সন্ত্রাস করে গণতন্ত্র রক্ষার নামে বিএনপি যে আন্দোলন করেছিল, তা জনগণ মেনে নেয়নি। এ কারণেই তারা পরবর্তীতে কোনো আন্দোলনে জনগণকে সম্পৃক্ত করতে পারেনি। আর এই নৈরাশা থেকেই আজ দলটির নেতা-কর্মীরা দিশেহারা।

কাদের আরো বলেন, আওয়ামী লীগ কখনো অগণতান্ত্রিক কথা বলে না, অগণতান্ত্রিক আচরণও করে না। বরং বিএনপি সব দিক থেকে এখন ব্যর্থ হয়ে অস্ত্রের ভাষায় কথা বলছে। তারা হাতুরি পিটিয়ে নিজেদের ঢোল বাজানোর চেষ্টা করছে।বাংলাদেশ মেডিক্যাল এসোসিয়েশন আয়োজিত আলোচনায় আরো উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ড. দীপু মনি, কেন্দ্রীয় নেতা রুহুল হক, বিএমএ সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন।

Top