রাত ৪:২২
ক্যান্সার আক্রান্ত সন্তানকে বাঁচাতে ১ দিনের বেতন দিলেন শিক্ষকরা২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার রায় আগামী মাসেইগুজব ছড়ানোর মামলায় চিকিৎসা শেষে নওশাবাকে কারাগারেকোটা সংস্কার : ২৫ শিক্ষার্থীর জামিনকোটা সংস্কার : রাশেদ-লুনাসহ সাত জনের জামিনআরও তিন শিক্ষার্থীর জামিনপ্রতিটি ঈদ জামাতে নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকবেদুর্নীতির মামলায় পূর্ব অনুমতি ছাড়া সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীকে গ্রেফতার নয়মির্জা ফখরুল নেতাকর্মীদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করবে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায়বউয়ের দোয়া পরিবহন

ঠাণ্ডা পড়ার আগেই পায়ের যত্ন

ডেস্ক : শীতকালের প্রভাবটা বেশির ভাগ পড়ে মানুষের ত্বকে। আর অন্যান্য সমস্যার সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়তে থাকে পায়ের গোড়ালি ফাটার সমস্যা। তাই ঠাণ্ডা পড়ার আগেই পায়ের প্রতি যত্নবান হোন।

পায়ের পাতার গোড়ালির দিকের নিচের অংশ ফেটে চৌচির হয়ে যায়। শুষ্ক আবহাওয়া এবং পায়ের পাতার যে অংশে চাপ বেশী পড়ে সেই অংশ ফেটে যায়। এই পা ফাটার ব্যথা কতটুকু ভয়াবহ ও ভোগান্তিকর হতে পারে, সেটা ভুক্তভোগী ছাড়া বোঝা কঠিন। এজন্য আগেই সচেতন হন পায়ের প্রতি। অনেকেই পা ফাটা রোধে অনেক ধরনের ক্রিম ব্যবহার করে থাকেন। কিন্তু কেমিক্যাল সমৃদ্ধ ক্রিমে প্রাথমিক ভাবে কিছুটা ঠিক হলেও পরবর্তীতে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াসহ নানান সমস্যা শুরু হয়।

ঘরোয়া পদ্ধতি:

লেবু
উপকরণ ও পদ্ধতি: ৪ থেকে ৫ ফোঁটা লেবুর রস, ১ চামচ ভ্যাসলিন ও একটু গরম পানি । এবার প্রথমে কিছুটা গরম পানি নিয়ে তাতে ১৫ থেকে ২০ মিনিট পা ডুবিয়ে রাখুন। তারপর ১ চামচ ভ্যাসলিন নিয়ে, তাতে ৫ ফোঁটা লেবুর রস দিন। পানি থেকে পা তুলে এই মিশ্রণটা গোড়ালিতে লাগান। এবং সঙ্গে সেখানে পা এর অন্যান্য জায়গায় যেখানে পা ফাটার সম্ভবনা রয়েছে সেখানে লাগান। এটা লাগিয়ে উলের মজা পরে সারারাত রাখুন। পরদিন সকালে ধুয়ে ফেলুন। এটা রোজই করতে পারেন পা নরম রাখার জন্য।

মধু
উপকরণ ও পদ্ধতি : ত্বককে নরম কোমল রাখতে মধুর বিকল্প নেই। শুধু কোমল নয়, পায়ের পাতাকে ফর্সা করতেও সাহায্য করবে। আধা কাপ মধু ও একটু গরম পানি মিশিয়ে নিন। তাতে পা ডুবিয়ে রাখুন ১৫ থেকে ২০ মিনিট। কিছুক্ষণ পা ডুবিয়ে রেখে পা হালকা ঘষুন। তারপর পা সরিয়ে নিন। এটিও রোজ রাতে করতে পারেন। এতে করে পা কেমন নরম কোমল থাকবে।

নারকেল তেল
উপকরণ ও পদ্ধতি: ২ চামচ নারকেল তেল ও পাতলা সুতির মোজা। প্রথমে নারকেল তেল হালকাভাবে হাতে পায়ে মালিশ করুন। তারপর পাতলা সুতির মোজা পরে শুয়ে পড়ুন। পরদিন সকালে ধুয়ে ফেলুন। পায়ের অবস্থা খুব খারাপ হলে এটি টানা এক সপ্তাহ করুন। নারকেল তেল পায়ের মরা কোষ সরিয়ে পা’কে আর্দ্র করে তোলে।

অলিভ তেল
উপকরণ ও পদ্ধতি : ১ চামচ অলিভ তেল পা ফাটার জায়গাসহ গোটা পায়ে হালকা ম্যাসাজ করুন। তারপর পায়ে পাতলা সুতির মোজা পরে নিন। এক ঘণ্টা পর পা ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে তিন থেকে চারদিন করুন।

গোলাপ জল ও গ্লিসারিন
উপকরণ ও পদ্ধতি : ২ চামচ গোলাপজল ও ২ চামচ গ্লিসারিন, এই দুটো উপকরণের মিশ্রণ তৈরি করুন। রাতে শুতে যাবার আগে হালকা হাতে একটু ম্যাসাজ করে নিন। তারপর শুয়ে পড়ুন। সকালে স্নানের সঙ্গেই পা ধুয়ে যাবে। সপ্তাহে তিনদিন করুন।

পা ফাটা রোধে এক এক রাতে এক একটা উপকরণ ব্যবহার করুন। মাঝে মাঝে একদিন বিরতি দেবেন।

Top