রাত ৩:৩৩
‘দহন’ থেকে বাদ পড়লেন বাঁধন!সাফল্য গাঁথা: ফরিদপুরের একজন অদম্য রোকেয়ার গল্প‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১১বার কাউন্সিল নির্বাচনের আনুষ্ঠানিক ফল ঘোষণা ২৬ মেএইচবিআরআই খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদনহা-মীম গ্রুপের এমডিকে দুদকের জিজ্ঞাসাবাদমুক্তিযোদ্ধার অসম্মানজনক দাফনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা : মোজাম্মেল হকরাজীবের দুই ভাইকে ক্ষতিপূরণের আদেশ স্থগিতযুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা, এতিম ও আলেম-ওলামাদের জন্য প্রধানমন্ত্রীর ইফতাররাশিয়ায় দাবানলে ২৩ হাজার হেক্টর বনাঞ্চল ধ্বংস

সোনারগাঁয়ে মারীখালি নদী দখলমুক্ত করার পদক্ষেপ

গাজী মোবারক (সোনারগাঁ, নারায়ণগঞ্জ) : গতকাল ০৮ নভেম্বর ‘দৈনিক প্রথম কথা’ পত্রিকায় শেষের পাতায় “সোনারগাঁ মেঘনা  গ্রুপের বিরুদ্ধে নদী দখলের অভিযোগ” মারীখালী নদীতে দখল বাণিজ্য নিয়ে একটি অনুসন্ধানী প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। প্রকাশিত সংবাদটি প্রশাসনের দৃষ্টিগোচর হলে সোনারগাঁ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহীনুর ইসলাম ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভ‚মি) বি.এম রুহুল আমিন রিমন তাৎক্ষনিকভাবে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের তহশিলদারকে ঘটনাস্থাল পরিদর্শন করে প্রতিবেদন প্রদানের নির্দেশ দেন। পরে ইউনিয়ন তহশিলদার আব্দুল কাদের, সার্ভেয়ার মশিউর রহমান সরেজমিন তদন্ত করে দখলের সত্যতার প্রমান পান এবং মৌখিকভাবে তাদেরকে ভরাট স্থগিত রাখতে বলেন। এ বিষয়ে সহকারী কমিশনার (ভ‚মি) রিমন জানান আমরা তদন্ত রিপোর্ট পাওয়ার পর স্থায়ী বন্দোবস্তের ৩ একর জমির স্কেচম্যাপ মিলিয়ে তাদের নির্ধারিত সীমার বাহিরের ভরাটকৃত নদী দখলমুক্ত করার আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
উল্লেখ্য যে, মেঘনা গ্রুপের বিরুদ্ধে মারীখালী নদীটি পরিকল্পিতভাবে ভরাট করার অভিযোগ উঠেছে। নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের শিল্পাঞ্চলে এ দখল বানিজ্য হচ্ছে বলে জানা যায়। সরেজমিনে দেখা যায়, সামিট পাওয়ার প্লান্টের বিপরীত পার্শ্বে, সরকারী ডিসি গার্ডেন সংলগ্ন মারীখালি নদীর প্রায় অর্ধেক জায়গা রাতের আঁধারে ফ্রেশ চিনির ডাষ্ট দিয়ে ভরে ফেলছে। প্রতিরাতে আস্তে আস্তে এভাবেই নাব্যতা হারাচ্ছে  স্রোতবাহী এ নদীটি। পিরোজপুর ভ‚মি অফিস সুত্রে জানা যায়, ২০১৬ সালে মেঘনা গ্রুপের চর রমজান সোনাউল্লাহ মৌজার আর এস খতিয়ান-১ ও আরএস ৩০৯০ নং দাগে ৩ একর খাস জমি স্থায়ী বন্দোবস্ত নেয়। সেখানে তারা স্থাপনা তৈরি করে ভোগদখল করছে।

Top